১৯৪৬ সালে শ্যামাপ্রসাদের করা মন্তব্য কি আজও প্রাসঙ্গিক?

2
Author Image তথাগত রায় লেখক- ‘The Life and Time of Dr. Syama Prasad Mookerjee’ -এর গ্রন্থকার, ত্রিপুরার রাজ্যপাল।

১৯৪৬ সালের ১০ জানুয়ারি শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর করা একটি মন্তব্য কয়েকদিন আগে আমি ট্যুইট করেছিলাম এবং তাঁকে আব্রাহাম লিঙ্কনের সঙ্গে তুলনা করেছিলাম। খুব আশ্চর্যজনকভাবে লক্ষ্য করলাম, প্রচুর মানুষ আমাকে দোষারোপ করে বলছেন, আমি নাকি হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বিরোধ তৈরি করে ভারতে গৃহযুদ্ধের ইন্ধন যোগাচ্ছি!  আমাকে যে বিষয়টা আঘাত করেছে, সেটা হল ১৯৪৬ সালে যে ডাইরি লেখা হয়েছিল, সেই বক্তব্যকে কি করে আজ ৭০ বছর পরেও সমর্থন করা যায়। তবে এটা পরিষ্কার যে, এই ধরনের মন্তব্য বেশ উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবেই করা হয়েছে, যেমন আদালতে আইনজীবীরা সওয়াল জবাবের সময় অনেক ক্ষেত্রে নিজেদের বক্তব্য কৌশলে সাক্ষীদের মুখে বসিয়ে দেন, এটাও অনেকটা সেরকম। কিন্তু প্রশ্ন হল ১০৫৬ সালে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী যেটা বলেছিলেন, সেটা কি সেই সময়ের পরিপ্রেক্ষিতে ভুল ছিল? আমার মতে এটা কেবলমাত্র সঠিকই ছিল না, এটা ছিল একদম নির্ভুল একটি ভবিষ্যতবাণী। কারণ, তিনি যে গৃহযুদ্ধের কথা বলেছিলেন, মাত্র সাত মাস পর জিন্না তা করে দেখান। ১৯৪৬-এর আগস্টে জিন্নার ‘ডিরেক্ট অ্যাকশান’ তত্ত্ব অনুসারে বিহারে প্রতিশোধমূলক হত্যাকাণ্ডের পরপরই ঘটে ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস’, নওয়াখালি গণহত্যা’র মতো নারকীয় ঘটনা।

shyama prasad mukherjeey

২০১২ সালে ড. শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর জীবনীমূলক যে বইটি আমি লিখেছিলাম সেখানে এ’বিষয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছিলাম। ‘The Life and Time of Dr. Syama Prasad Mookerjee’  বইটির সাত নম্বর প্রচ্ছদের (১৭৫পৃষ্ঠা) একটি অংশ এখানে তুলে ধরলাম-
‘‘যদি হিন্দু, মুসলমান মিলিত হয়ে ভারতীয় সংস্কৃতিকে বজায় রাখে, যে যার ধর্ম ও আচরণ অনুযায়ী বসবাস করে, তাহলে তো গোলমালের কথা ওঠে না। কিন্তু যদি আবার মুসলমান তার স্বধর্মে অতিরিক্ত নিষ্ঠা দেখিয়ে হিন্দুর উপর আধিপত্য বিস্তার করতে প্রয়োগ করে, তখন হিন্দু কিভাবে নিজেকে রক্ষা করবে সেটা চিন্তা করে দেখেও না। একটা Civil War ছাড়া হিন্দু-মুসলমান সমস্যার সমাধান হবে না। Civil War আমরা চাই না- কিন্তু যদি অপর পক্ষ তৈরী হয়ে ওঠে আর আমরা প্রস্তুত না থাকি, তাহলে আমরাই ঠকব শেষ পর্যন্ত। কংগ্রেস হিন্দু-মুসলমানের সমস্যার কোনও সমাধান করতে পারেনি, পারবে‍ও না। হিন্দু-মুসলমান সমস্যা হিন্দু ও মুসলমানের ভিতর বোঝাপড়া করে শেষ হবে- বন্ধুভাবে মিলন হবে, অথবা সংঘর্ষের মধ্যে আপন আপন শক্তি পরীক্ষার পর আপোষ হবে। আপোষ যদি না হয়, যে অধিক শক্তিশালী, সেই শেষ পর্যন্ত টিকে থাকবে। একটা প্রতিষ্ঠান যে হিন্দুর সহায়তার উপর নির্ভর করে গড়ে উঠেছে অথচ হিন্দুস্বার্থ রক্ষা করার কথা চিন্তা করা বা বলা পাপ বলে মনে করে, সেই প্রতিষ্ঠান কি করে লড়তে পারে আর এক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যে মুসলমান প্রাধান্য স্থাপন করাই, ইসলামের ধ্বজাকে বাড়িয়ে তোলাই তার একমাত্র কাম্য বলে মনে করে?’’
আব্রাহাম লিঙ্কনের সঙ্গে আমি তুলনা করেছিলাম দেশভাগ প্রতিরোধ করার জন্য। লিঙ্কন গৃহযুদ্ধের পথে গিয়েছিলেন যখন আমেরিকার দক্ষিণাংশের প্রদেশগুলি বিচ্ছিন্ন হতে চাইছিল। লিঙ্কন দেশকে ভাঙতে দেননি, আর সে কারণেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীর সবচাইতে শক্তিধর দেশ। আমাদের দেশের নেতারা যদি লিঙ্কনের মতো সাহস দেখাতে পারতেন, তাহলে আমরা দেশভাগ এবং অনেক খারাপ ঘটনা এড়াতে পারতাম এবং ভারতবর্ষ আজ সম্ভবত পৃথিবীর অন্যতম শক্তিধর দেশ হত।
যাই হোক এই ট্যুইটটি কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল এবং আমাকে একটি প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছিল- ১৯৪৬ সালে লেখা একটি মন্তব্যর বর্তমান সময়ে কী প্রাসঙ্গিকতা রয়েছে? এই প্রশ্নটি আমাকে অবাক করেছিল। তাহলে বর্তমান সময়ে হরপ্পা ও মহেঞ্জোদারোর অথবা সম্রাট অশোকের
প্রাসঙ্গিকতা কোথায়? আমার বক্তব্য হচ্ছে ইতিহাস অবশ্যই পড়া উচিত, তাহলে কোনও কিছু গোপন করা সম্ভব নয়, আমি গবেষণা সংক্রান্ত পড়াশুনোয় এটা বুঝেছি। স্প্যানিশ দার্শনিক হোর্হে স্যান্টিয়ানা এর বিখ্যাত উক্তি, ‘‘কেউ যদি নিজের অতীতকে ভুলে যায়, তা হলে তার পুনরাবৃত্তি অবশ্যম্ভাবী।’’ বর্তমান সময়ে হিন্দু এবং মুসলমান সম্প্রদায়কে ভারতবর্ষে শান্তিতে থাকার বিষয়ে অবশ্যই শিখতে হবে, তা না হলে ১৯৪৬-এর মতো পরস্থিতি আবার তৈরি হতে পারে।
  • Navonil Sarkar

    Bortoman e ekta probonota dekha jache Syamaprasad babuke poshchimbonher jonok proman korar! Eta hasyokor. Karon tini prothom bekti je bongo bibhag somorthon korechilen; purbongiyo Hindu der kotha abibechoker moto bishorjon diye; congress er anek chesta r modhye ekti jukto bongo jeta ekrokom nirupay hoye purbobongiyo Hindu der sartho rokhar jonno kora hoyechilo.

    • Dev Raj

      Dhur…..
      Dr Mukherjee broke pakistan. Or else that Surawardi had every plan to take West Bengal in Pakistan and systematically destroy the Hindus out there.